শেখ সাদ্দাম হোসেন

গুজারিশ ১

 

শ্লেটে অ আ বেড়ে রেখে ভাতঘর ফুরিয়ে গেছে।
নিজেকে মুছতে একটি নার্সের পোশাক হাতে নিলাম
কেবিন জুড়ে কাটা ধানের আহত মাঠ, ই ঈ

মাথায় আপেল মেখে, তোমার রোদে কাশ্মীর শুকাচ্ছিলাম।
ভুল ধরিয়ে দিতে দিতে দেখলে- তুমি মায়ের কথায় মনে পড়ছো
আমি দুঃখিত, সমাজে এই ওষুধের ডাক্তার থাকতে নেই

নার্স তো থাকতে আছে!
খোলা পোশাকের পরও, হাতে নেওয়ার অন্য কিছু..

 

গুজারিশ ২

আমি তোমার ভিতর যতটা ঢুকেছি
একটা গর্ভনিরোধক তার কিছুই করে উঠতে পারেনি।

শিকড় মাটি পর্যন্ত নয়, পাতা পর্যন্ত তার সংসার বেশি
ভাবো, প্রশ্বাসের বয়সে আমরা কতটুকু আর বেঁচে থাকতে জানি!

তোমাকে প্রতিটি সম্ভোগে নতুন করে জন্ম, আমার নতুন করে মৃত্যু হয়
যন্ত্রণা থেকে শিখেছ- তোমার উপাসনালয় কেবলমাত্র ঘর নয়

 

গুজারিশ ৩

যোগ্যতা কোনোদিন শিক্ষাগত হয় না
জন্ম থেকেই নিজেকে রান্না করে খাচ্ছে ওই গাছ

অবাক হচ্ছো তাই না? 
আয়না তোমার কিছুই দেখতে পায় না। একটু পাগলামি দ্যাখো
লোকাল বাউলটির গন্ধ পেরিয়ে যে ট্রেনটা ছেড়ে যাচ্ছে
তার অন্দরে তুমি, আমি ছক কষছি-

আমাদের সকলের একমাত্র শীতকাতুরে মেয়ের নাম — কুয়াশা।

About চার নম্বর প্ল্যাটফর্ম 1802 Articles
ইন্টারনেটের নতুন কাগজ

Be the first to comment

আপনার মতামত...